মডিউল-১

মডিউল-১, সেশন-২ঃ ফার্মাসিস্ট কোড অব ইথিকস এবং মডেল মেডিসিন শপে গ্রেড ‘সি’ ফার্মাসিস্টদের (ফার্মেসি টেকনিশিয়ান) দায়িত্ব ও কর্তব্য

মডিউল-২

মডিউল-৪

মডিউল-৪, সেশন-৩ঃ ওষুধ প্রয়োগের পথ

মডিউল-৫

মডিউল-৫, সেশন-২ঃ শুধুমাত্র প্রেসক্রিপশনের মাধ্যমেই ক্রেতার নিকট বিক্রয়যোগ্য ওষুধসমূহ (Prescription Only Medicines)

মডিউল-৭

মডিউল-৭, সেশন-২ঃ এ্যান্টিবায়োটিকের অকার্যকর হওয়া যেভাবে ছড়িয়ে পড়ে

মডিউল-৮

মডিউল-৮, সেশন-২ঃ করোনা সংক্রমণকালীন নিরাপদ ওষুধ ডিসপেন্সিংয়ের ক্ষেত্রে সংক্রমণ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা অনুসরণ

লেসন-৫ঃ নকল ও ভেজাল ওষুধ

নকল ও ভেজাল ওষুধ

নকল ও ভেজাল ওষুধ হলো যার পরিচিতি এবং উৎস সম্পর্কে ভুল তথ্য সংবলিত লেবেল লাগানো আছে, এগুলো বাজারে উচ্চ চাহিদাসম্পন্ন ওষুধসমূহের নকল যাতে মূল ওষুধের সামান্য সক্রিয় উপাদান থাকে বা কিছুই থাকে না কিন্তু দেখতে প্রায় একই রকম দেখায়।

মডেল মেডিসিন শপে সবসময় মানসম্মত ওষুধ ডিসপেন্সিং এর নিশ্চয়তার জন্য ডিসপেন্সারকে সকল সময় সতর্ক থাকতে হবে যাতে মেডিসিন শপে কোন নকল ওষুধ স্থান না পায়। এটি ক্রেতাদের আসল ওষুধ মনে করে কিনতে বিভ্রান্ত করে। ব্যক্তি মালিকানাধীন খুচরা ওষুধের দোকান এবং ক্লিনিকগুলোই সাধারণত এ সকল নকল ওষুধের মূল ক্রেতা।

কিভাবে নকল ওষুধ সনাক্ত করবেনঃ

কি দেখতে হবে

কেন দেখতে হবে

মূল্য

  • নকল ওষুধসমূহ সাধারণত আসল ওষুধের তুলনায় অনেক কম মূল্যে বিক্রয় করা হয়ে থাকে।
  • সাধারণত এটা গ্রাহকদের আকৃষ্ট করার জন্য করা হয়ে থাকে যাতে সর্বোচ্চ লাভ করা যায়

সরবরাহের উৎস

  • নকল ওষুধ সাধারণত বড় কোন দোকানে বিক্রয় হয় না। এদের কোন লাইসেন্সধারী বিক্রয় কেন্দ্র থাকে না। দালাল বা ক্ষুদ্র দোকানের মাধ্যমে অনেকটা গোপনে বিক্রয় হয়।
  • তারা সাধারণত নগদ বিনিময়ে বিক্রয় করে থাকে।
  • কোন কোন বড় দোকানও পাইকারীভাবে নকল ওষুধ বাজারজাত করায় যুক্ত থাকতে পারে।
  • নকল ওষুধের ব্যবসা কখনো কখনো দালাল বা কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে পরিচালিত হয়।

ময়োদোত্তীর্ণের তারিখ

  • কোন কোন নকল ওষুধের গায়ে ময়োদোত্তীর্ণের তারিখ লেখা থাকে না বা থাকলেও তা পরিবর্তিত হয়ে থাক।
  • ওষুধের গায়ে লেভেলে যে ময়োদোত্তীর্ণের তারিখ দেয়া থাকে, অনেক সময় তা বাইরের প্যাকটটির গায়ে যে তারিখ লেখা থাকে তার সাথে মিলে না।

ব্যাচ নম্বর

  • প্যাকেজিং বক্সে যে ব্যাচ নাম্বার লেখা থাকে তা অনেক সময় ভিতরে ওষুধের গায়ের ব্যাচ নাম্বারের সাথে মিলে না।

প্যাকেটের সাইজ ও রং

  • আসল ওষুধের প্যাকেটের (মোড়কের বা লেবেলের) রং এর সাথে নকল ওষুধের মোড়ক বা লেবেলের রং-এ সামান্য পার্থক্য লক্ষ্য করা যায়।
  • নকল ওষুধের মোড়ক বা বাক্স আসল ওষুধের বাক্স থেকে সাইজে কমবেশি হতে পারে।
  • নকল ওষুধের প্যাকেজিং সাধারণত আসল ওষুধের চেয়ে নিম্নমানের হয় তবে কখনো কখনো উন্নতমানেরও হয়।

ট্যাবলেটের গঠন

  • নকল ওষুধসমূহ সাধারণত আসল ওষুধের মত মসৃণ হয় না এবং খুব সহজে ভেঙ্গে যায় এবং গুড়ায় পরিণত হয়।
  • কখনো কখনো একটি অন্যটির সাথে আঠালো হয়ে লেগে যায়।